সাংবাদিককে হত্যার আদেশ সৌদি যুবরাজের অস্বীকার

সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান টেলিভিশনে প্রচারিত এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন যে তিনি সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগির ভয়াবহ খুনের ‘পূর্ণ দায়’ গ্রহণ করেন। তবে তিনি খুনের আদেশ দেয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।রোববার প্রচারিত ‘সিক্সটি মিনিটস’ অনুষ্ঠানে যুবরাজ মোহাম্মদ (৩৪) বলেন, ‘এটা ছিল এক জঘন্য অপরাধ। বিশেষ করে যেহেতু সৌদি সরকারের হয়ে কাজ করা ব্যক্তিরা এটি ঘটিয়েছিলেন তাই আমি সৌদি আরবের একজন নেতা হিসেবে পূর্ণ দায় গ্রহণ করি।’ওয়াশিংটন পোস্টের কলামে তার সমালোচনা করা খাশোগিকে হত্যার জন্য তিনি আদেশ দিয়েছিলেন কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে যুবরাজ মোহাম্মদ বলেন, ‘একেবারেই না’। খুনের ঘটনাটি ‘একটি ভুল’ ছিল বলে মন্তব্য করেন তিনি।খাশোগি তার তুর্কি বাগদত্তাকে বিয়ে করার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজ আনতে ২০১৮ সালের ২ অক্টোবর তুরস্কে সৌদি দূতাবাসে প্রবেশ করেন।

তার ভেতরে সৌদি সরকারের ঘাতকরা খাশোগিকে হত্যার পর দেহ স্পষ্টতই টুকরো করে ফেলেন, যা আর পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় সৌদি আরব ১১ জনকে অভিযুক্ত করে গোপনে বিচারের মুখোমুখি করেছে। তবে এখন পর্যন্ত কেউ দোষী সাব্যস্ত হননি।জাতিসংঘের একটি প্রতিবেদন জোর দিয়ে বলেছে যে এ হত্যার দায় সৌদি আরবের এবং এতে যুবরাজ মোহাম্মদের সম্ভাব্য ভূমিকা তদন্ত করা উচিত।মার্কিন কংগ্রেস জানিয়েছে, তারা বিশ্বাস করে যে যুবরাজ মোহাম্মদ ‘খুনের জন্য দায়ী’।সৌদি আরব দীর্ঘদিন ধরে দাবি করে আসছে যে এ ঘটনায় যুবরাজের কোনো সম্পর্ক ছিল না। যদিও এ ঘটনায় এমন এজেন্টরা জড়িত ছিলেন যারা তার কাছে সরাসরি জবাবদিহি করতেন।সৌদি সিংহাসনের ক্ষমতাশালী উত্তরাধিকারী মোহাম্মদ সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘কেউ কেউ মনে করেন যে সৌদি সরকারের জন্য ৩০ লাখ মানুষের করা কাজের বিষয়ে আমি প্রতিদিন জানব। এটা অসম্ভব যে ৩০ লাখ মানুষ তাদের প্রতিদিনের প্রতিবেদন সৌদি সরকারের প্রধানকে বা দ্বিতীয়-সর্বোচ্চ ব্যক্তিকে পাঠাবেন।’বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কে অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসকে (এপি) এক সাক্ষাৎকারে খাশোগির বাগদত্তা হাতিস চেনগিজ বলেন, খাশোগিকে খুনের দায় ‘অপরাধীদের মধ্যে সীমাবদ্ধ ছিল না’। সেই সাথে তিনি বলেন, তিনি চান যে যুবরাজ মোহাম্মদ তাকে বলুক: ‘কেন জামাল খুন হয়েছেন? তার দেহ কোথায়? এ খুনের উদ্দেশ্য কী ছিল?’ ইউএনবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares