ভিক্ষুকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে সাড়ে ৭ কোটি টাকা

১০ বছরের বেশি সময় লেবাননের সিডন শহরে ভিক্ষা করছেন ওয়াফা মোহাম্মদ আওয়াদ নামে লেবাবনের ওই নারী। তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ১.২৫ বিলিয়ন লেবানিজ পাউন্ড। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৭ কোটি ৬০ লাখের বেশি।

এই কোটিপতি নারী ভিক্ষুকের বিষয়টি দেশটির সামাজিক যোগাযোগ মধ্যম এবং গণমাধ্যমে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

ওয়াফা মোহাম্মদ আওয়াদ জামাল ট্রাস্ট ব্যাংক থেকে তার এ্যাকাউন্ট সরিয়ে অন্য ব্যাংকে নিতে চাইলে বিষয়টি নজরে আসে। তার নামে ইস্যু হওয়া চেকটি গত ৩০শে সেপ্টেম্বর ভাইরাল হয়। যা প্রমাণ করে, ওই ভিক্ষুক একজন কোটিপতি।

ওয়াফা মোহাম্মাদ আওয়াদ ভিক্ষুক হিসেবেই পরিচিত। সিডন শহরের একটি হাসপাতালের সামনে তিনি প্রতিদিন ভিক্ষা করেন। জামাল ট্রাস্ট ব্যাংক বন্ধ হওয়ার ঘোষণা আসার পরেই ওই নারী ধরা পড়ে যান।

একটি বিতর্কিত সংগঠনকে টাকার দেওয়ার অভিযোগে জামাল ট্রাস্ট ব্যাংকটির বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এরপর ব্যাংকটি বন্ধ করার ঘোষণা দেওয়া হয়। তবে গ্রাহকদের সবার অর্থ নিরাপদে আছে বলে আশ্বস্ত করে লেবাননের কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

বুধবার (২ অক্টোবর) বিকেল থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দুটি চেকের ছবি ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে। দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকেই চেক দুটি ইস্যু করা হয়।

যার মধ্যে একটি চেক বৃদ্ধার নারী ওয়াফা মোহাম্মদ আওয়াদের। তিনি ব্যাংকে চেকটি আনতে গেলে পরিচয় গোপনের বিষয়টি সামনে চলে আসে। ওই নারী চেক নেওয়ার সময় কেন্দ্রীয় ব্যাংকটির এক কর্মকর্তা তাকে চিনে ফেলেন। এরপর তিনি ওয়াফার ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করেন।

দেশটির যে হাসপাতালের সামনে ওই বৃদ্ধা নারী ভিক্ষা করতেন, সেই হাসপাতালের হানা নামের এক নার্স সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রভাবশালী দৈনিক গালফ নিউজকে বলেন, ওয়াফা মোহাম্মদ আওয়াদ ১০ বছর ধরে এখানে ভিক্ষা করেন। কিন্তু আমরা তো তাকে বুঝতেই পারিনি। বৃদ্ধার নাম এখন সবার মুখে মুখে জড়িয়ে পড়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares