খালেদা জিয়া প্রসেঙ্গ প্রধানমন্ত্রী: নো কম্প্রোমাইজ

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ব্যাপারে ‘নো কম্প্রোমাইজ’ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য না করতে নিজ দলের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবাযদুল কাদেরসহ অন্যান্য নেতাদের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় গণভবনে আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতা সাক্ষাৎ করতে গেলে অনির্ধারিত এক বৈঠকে এ কথা বলেন সরকার প্রধান শেখ হাসিনা। বৈঠকে উপস্থিত একাধিক নেতা বিষয়টি টোয়েন্টিফোর লাইভ নিউজপেপারকে নিশ্চিত করেছেন।তারা জানান,

বৈঠকে ওবায়দুল কাদেরের প্রতি ইঙ্গিত করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘খালেদা জিয়ার ব্যাপারে নো কম্প্রোমাইজ। এ নিয়ে কেউ কোনো মন্তব্য করবেন না।’ খালেদা জিয়ার ব্যাপারে বিভিন্ন সময়ে যারা বক্তব্য দিয়েছেন, তাদের প্রতি ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়াও দেখিয়েছিনে তিনি।এছাড়া আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চলমান অভিযান প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অপরাধী যেই হোক, তাদের কোনো ছাড় দেয়া হবে না। আপনারা কেউ তাদের বাঁচানোর চেষ্টা করবেন না, আমার কাছেও তদবির নিয়ে আসবেন না। স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়ন করতে এ অভিযান চলবে, অপরাধীদের শাস্তি পেতেই হবে।অনির্ধারিত এ বৈঠকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, বিএম মোজাম্মল ও খালিদ মাহমুদ চৌধুরীসহ কয়েজন কেন্দ্রীয় নেতা উপস্থিত ছিলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, নাগরিকত্ব শনাক্ত করতে রোহিঙ্গাদের যে আবেদনপত্র পূরণ করতে দেয়া হয়েছিল, সেখানে ভুল থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছে মিয়ানমার। ইতোমধ্যে যারা শনাক্ত হয়েছেন তাদের যত দ্রুত সম্ভব ফিরিয়ে নেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে মিয়ানমার।মন্ত্রী আরো বলেন, আজকের এই রোহিঙ্গা সংকট মিয়ানমারেরই তৈরি। সুতরাং এর সমাধান তাদেরই করতে হবে। এ বিষয়ে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে প্রায় সকল দেশ তাদের মত দিয়েছে।জাতিসংঘ অধিবেশনের সময় ত্রিপাক্ষিক আলোচনা হয়েছে উল্লেখ করে আবদুল মোমেন বলেন, জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের সাইড লাইনে বাংলাদেশ, চীন ও মিয়ানমারের সঙ্গে ত্রিপক্ষীয় বৈঠক হয়েছে। সেখানে রোহিঙ্গা ইস্যুতে শক্তিশালী আলোচনা হয়েছে। রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে যৌথ কমিশন গঠন করা হবে। তাদের নাগরিকদের অবশ্যই ফিরিয়ে নেবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares